তামিমকে দীর্ঘ মেয়াদে অধিনায়ক দেখতে চায় বোর্ড

অধিনায়কত্ব আগেও করেছেন তামিম ইকবাল। টেস্ট ও ওয়ানডেতে বাংলাদেশ জাতীয় দলকে নেতৃত্ব দেওয়ার সে সময়গুলোয় অবশ্য আপৎকালীন দায়িত্ব পেয়েছিলেন। নিয়মিত অধিনায়কদের চোট বা অনুপস্থিতিতে বাধ্য হয়েছিলেন দলের দায়িত্ব নিতে। এবারই প্রথম আনুষ্ঠানিকভাবে অধিনায়ক করা হয়েছে তামিম ইকবালকে। এই ওপেনারকে ওয়ানডে অধিনায়ক করার ফলে তিন সংস্করণে তিন অধিনায়ক পাচ্ছে বাংলাদেশ।

একদিকে মাশরাফি বিন মুর্তজা অধিনায়কত্ব সরে দাঁড়িয়েছেন, ওদিকে সাকিব আল হাসানের অনুপস্থিত নিষেধাজ্ঞার কারণে। এমন অবস্থায় তামিম ইকবালের অধিনায়ক হওয়াকে অনেকেই বলছেন সাময়িক সুরাহা। কিছুদিন পরেই হয়তো দলের দায়িত্ব দীর্ঘ মেয়াদে অন্য কাউকে দেওয়া হতে পারে। কিন্তু গতকাল বোর্ডের সভা শেষে ক্রিকেট বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান জানিয়ে দিয়েছেন, তামিমকেই দীর্ঘ মেয়াদের জন্য ভাবছেন তাঁরা, ‘একটা চিন্তা ছিল সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্য করব, সামনের বছর আবার বদলাব। এখন এটা ভাবনায় নেই। সাধারণত বোর্ড যেভাবে সিদ্ধান্ত নয়, সেভাবেই আমরা নিয়েছি—ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল। কোনো সময় বেঁধে দেওয়া নেই। আমরা চাই তামিম লম্বা সময় নেতৃত্ব দিক।’

ওয়ানডে অধিনায়ক নির্বাচন করতে গিয়ে বোর্ডকে যে বিভিন্ন বিষয় মাথায় রাখতে হয়েছে, সেটাও জানিয়েছেন বোর্ড সভাপতি। সম্ভাব্য অধিনায়কদের মধ্যে নাকি অনাগ্রহও দেখেছে বোর্ড, ‘বোর্ড সবাইকেই দেখেছে। অনেকে আগ্রহী না। দিলেই নিতে চাচ্ছে এমনও না। সবার কথা চিন্তা করেই বোর্ড ঠিক করেছে তামিমই অধিনায়ক। নিশ্চয়তার কিছু নেই, তবে লম্বা সময়ের জন্যই আছে। নিশ্চিত করে বলা কঠিন হবে। তবে আমরা তাকে লম্বা সময়ের জন্যই অধিনায়ক করেছি।’

নভেম্বরের মধ্যে সাকিবকে পাওয়ার সম্ভাবনা আছে। নিষেধাজ্ঞার আগে দলের টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়কত্ব করা সাকিব ওয়ানডেতেও মাঠের পারফরম্যান্সে দলকে নেতৃত্ব দিচ্ছিলেন। ফলে বছরের শেষভাগে সাকিব ফিরলে অধিনায়কের প্রশ্নে বোর্ড নতুন করে চিন্তা করবে কি না—এমন প্রশ্ন ওঠা অমূলক নয়। বোর্ড সভাপতির কথায় ইঙ্গিত, এমন একটা ভাবনা তাঁদের মধ্যেও ছিল। পরে সেখান থেকে সরে এসেছেন তাঁরা, ‘আমি আপনাদের বলেছি যে আমাদের একটা ধারণা ছিল, আমরা আগামী কিছুদিনের জন্য একজনকে অধিনায়ক বানাব। এরপরে সামনের বছর আরেকজনকে। তবে আজ বোর্ডে আলোচনা করে ঠিক করা হয়েছে যে আমরা কোনো শর্ট টার্ম অধিনায়ক করার চিন্তাভাবনা নেই। আমরা যা করেছি, সেটা লম্বা সময়ের চিন্তা করেই করেছি। এখন পর্যন্ত আমরা তামিম ইকবালকে বাছাই করেছি। আমরা চাই সে লম্বা সময়ের জন্য থাকুক। সামনে কী হবে, সেটা তো আর বলা যাচ্ছে না। তারিখ নির্ধারণ করে তো আর বলা যাবে না। তবে আমাদের তরফ থেকে আমরা তাঁকে লম্বা সময়ের জন্য চাইছি।’

শেয়ার করুন