চট্টগ্রামে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে পুলিশ সদস্যের মৃত্যু

করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) উপসর্গ নিয়ে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এক পুলিশ সদস্যের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার (১ জুন) বেলা ১১টায় মামুন উদ্দিন (২৮) নামে ওই পুলিশ সদস্যের মৃত্যু হয়।

মামুন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ছিলেন কি-না তা নিশ্চিত হতে তার নমুনা পরীক্ষার জন্য চট্টগ্রামের ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেসে (বিআইটিআইডি) পাঠানো হয়েছে বলে জাগো নিউজকে জানিয়েছেন নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার ও জনসংযোগ কমকর্তা আবু বকর সিদ্দিক।

তিনি জানান, সিএমপির পাবলিক অর্ডার ম্যানেজমেন্টে (পিওএম) কনস্টেবল হিসেবে কর্মরত ছিলেন মামুন উদ্দিন। পুলিশে যোগদান করেন ২০১২ সালে। তার গ্রামের বাড়ি ফেনীর পরশুরাম থানাধীন নিজকালিকাপুর গ্রামে।

সোমবার বাদ জোহর চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের দামপাড়া পুলিশ লাইন্সে স্বাস্থ্যবিধি মেনে তার জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। পুলিশ কমিশনার মো. মাহাবুবর রহমানসহ সিএমপির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা জানাজায় অংশগ্রহণ করেন এবং তার মরদেহে ফুলেল শ্রদ্ধা জানান।

জানাজা শেষে দাফনের জন্য সিএমপির ব্যবস্থাপনায় তার মরদেহ গ্রামের বাড়িতে পাঠানো হয়। মামুনের মৃত্যুতে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মো. মাহাবুবর রহমান গভীর দুঃখ ও শোক প্রকাশ করেছেন এবং তার বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেছেন।

এর আগে সোমবার সকাল ৮টার দিকে চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটের আয়া হাসিনা বেগমের (৬০) মৃত্যু হয়। হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি।

চট্টগ্রামে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রতিদিনই মৃত্যুর ঘটনা ঘটছে। এখন পর্যন্ত এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চট্টগ্রামে ৭৫ জন প্রাণ হারিয়েছেন। তবে করোনা শনাক্তের আগেই অধিকাংশ রোগীর মৃত্যু হয়েছে। অন্তত ২০ জনের মৃত্যুর পর করোনা পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে। এছাড়া আইসোলেশনে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ২০ জনের বেশি নারী-পুরুষ।

শেয়ার করুন