শুটিং ও সিনেমা হল বন্ধ হচ্ছে

বিনোদন ডেস্ক::
আগামী ১৪ এপ্রিল থেকে শুরু হতে যাওয়া ‘কঠোর’ লকডাউনে শতভাগ বন্ধ থাকবে নাটক-চলচ্চিত্রের শুটিংসহ সকল প্রেক্ষাগৃহ।

তবে সেটা সরকারি সিদ্ধান্ত মোতাবেক হবে বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্টরা।

শনিবার (১০ এপ্রিল) বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির নব নির্বাচিত কমিটির প্রথম সভায় শুটিং নিয়ে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন এর সভাপতি সোহানুর রহমান সোহান।

অন্যদিকে, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিবেশক সমিতিও একই মত দিলো। এর সহসভাপতি মিঞা আলাউদ্দিন বলেন, ‘সরকার ৫০ শতাংশ সিট ফাঁকা রেখে হল পরিচালনার কথা বলেছে। তবে এখন ৬৫ শতাংশ এমনিতেই ফাঁকা থাকে। কোনও হলে মানুষই আসে না। তাই লকডাউন হলে আমরা সিনেমা হল সব বন্ধ করে দেবো। তবে সরকারি প্রজ্ঞাপনের অপেক্ষায় আছি। সেটি হলেই আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেবো।’

অন্যদিকে সোহানুর রহমান সোহান বলেন, ‘সর্বাত্মক বলতে তো সব কিছুই বন্ধ বোঝায়। যদি সেটা হয়, তাহলে আমরা একাত্মতা প্রকাশ করি। লকডাউন উঠে যাওয়ার পর আবারও পরিচালকরা শুটিংয়ে ফিরতে পারবেন। তবে বিষয়টি নিয়ে আগামী ১৩ এপ্রিল ভার্চুয়াল মিটিং হবে আমাদের। সেখানেই সব কিছু স্পষ্ট করে জানানো হবে।’

এর আগে গত বছরের মার্চে লকডাউনের সময় একই ব্যবস্থা নিয়েছিল সংশ্লিষ্ট সমিতিগুলো। এবারও প্রজ্ঞাপন জারির পর পরিস্থিতি সেদিকেই যাবে বলে ধারনা করছে চলচ্চিত্র ও নাটকের সংগঠনগুলোর কর্তারা। প্রতিটি সংগঠন মূলত অপেক্ষায় আছে সরকারের ‘কঠোর’ লকডাউন নির্দেশনার দিকে।

খবর মিলেছে, সরকার বা সমিতির বিধিনিষেধের আগেই দেশের বেশির ভাগ তারকা এরমধ্যে ফিরেছে নিজ নিজ বাসায়। স্থগিত করেছে পূর্ব নির্ধারিত শুটিং সিডিউল। যার মধ্যে আছেন শাকিব খান, পরীমনি, অপূর্ব, মেহজাবীন চৌধুরী, আফরান নিশো প্রমুখ।

  •  
শেয়ার করুন