বড়লেখায় স্বেচ্ছায় খ্রিস্টান চা শ্রমিকের ইসলাম ধর্ম গ্রহণ

বড়লেখা প্রতিনিধিঃ মৌলভীবাজারের বড়লেখায় রিপন সাংমা (৪০) নামের এক যুবক খ্রিস্টান ধর্ম থেকে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন। বড়লেখা জুুুুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে এফিডেভিট শেষে রোরবার রাতে উপজেলার সুফিনগর (ভাগল) চরিয়া তাহফিজুল কোরআন আইডিয়াল মাদ্রাসার উদ্যোগে আয়োজিত বার্ষিক ওয়াজ মাহফিলে ড. মাওলানা লুৎফুর রহমানের হাতে স্বেচ্ছায় হাত রেখে কালেমা পড়ে সে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করে।

রিপন সাংমা উপজেলার ৫ নং দক্ষিন শাহবাজপুর ইউনিয়ন পরিষদের ৩ নং ওয়ার্ডের শাহবাজপুর চা বাগানে কাজ করেন। তার মুল বাড়ি ময়মনসিংহে। সে দীর্ঘদিন থেকে শাহবাজপুর চা বাগানে শ্রমিক হিসাবে কাজ করছে। ইসলাম ধর্মের প্রতি অনুপ্রাণিত হয়ে সে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করে। ইসলাম ধর্ম গ্রহণের পর তার নতুন নাম রাখা হয়েছে মো. আব্দুল্লাহ।

এ বিষয়ে আয়োজক কমিটির সদস্য মাওলানা আব্দুল কাদির বলেন, স্থানীয় কিছু মানুষ রিপন সাংমা নামের এক ব্যক্তিকে মাহফিলে নিয়ে আসে। পরে মাহফিলের কমিটির সাথে যোগাযোগ করে রিপন সাংমা তার মুসলিম হওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করলে মাওলানা ড.লুৎফুর রহমানের হাতে হাত রেখে সে ইসলাম ধর্ম গ্রহন করে।

স্থানীয় সুহেল আহমদ জানান, রিপন দক্ষিন শাহবাজপুরের একটি চা বাগানে কাজ করেন। তিনি স্বেচ্ছায় ইসলাম ধর্মের প্রতি অনুপ্রাণিত হয়ে মুসলমান হয়েছেন। তিনি অনেক দিন ধরেই তিনি ইসলাম ধর্ম গ্রহণে আগ্রহ প্রকাশ করে আসছিলেন।

এরই পরিপ্রেক্ষিতে রোববার রাতে সুফিনগর (ভাগল) চরিয়া তাহফিজুল কোরআন আইডিয়াল মাদ্রাসার উদ্যোগে আয়োজিত ওয়াজ মাহফিলে স্বেচ্ছায় মাওলানা ড.লুৎফুর রহমানের হাতে হাত রেখে কালেমা পড়ে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন।

এ বিষয়ে দক্ষিন শাহবাজপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. সাহাব উদ্দিন বলেন, ধর্মান্তরিত হওয়া এটা যার যার ব্যক্তিগত ব্যাপার। সে হিসাবে রিপন সাংমা ইসলাম ধর্মকে ভালো মনে করেছেন তাই তিনি ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন।

  •  
শেয়ার করুন